মঙ্গলবার, ২৪ মে ২০২২, ০২:৪৮ পূর্বাহ্ন
সর্বশেষ শিরোনামঃ
ই-কমার্স কেলেঙ্কারির সঙ্গে জড়িতদের খুঁজতে হাইকোর্ট নির্দেশ ৬৩ বছরের রেকর্ড ভাঙ্গলেন লিটন ও মুশফিক সুনির্দিষ্ট নীতিমালার আওতায় সাইবার নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে হবে : বিদ্যুৎ প্রতিমন্ত্রী রেমিটেন্সের বিপরীতে নগদ সহায়তা পদ্ধতি সহজ করলো বাংলাদেশ ব্যাংক ‘শুভকে দেখে মনে হয়েছে বঙ্গবন্ধু দাঁড়িয়ে আছেন’; দেলোয়ার জাহান ঝন্টু খালেদা জিয়াকে নিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বক্তব্য দায়িত্বজ্ঞানহীন; মির্জা ফখরুল শ্রমিকদের ৪০০ কোটি টাকা দিয়ে ড. ইউনূসের ‘সমঝোতা’ দুর্নীতি মামলায় আত্মসমর্পণের পর কারাগারে সাবেক ওসি প্রদীপের স্ত্রী চুমকি গণমাধ্যমের স্বাধীনতা নিয়ে বিএনপি’র বক্তব্য নতুন ষড়যন্ত্রের বহির্প্রকাশ : সেতুমন্ত্রী তাইওয়ানকে রক্ষায় পাশে থাকবে যুক্তরাষ্ট্র বাংলাদেশ ক্রিকেটের উন্নয়নে প্রয়োজনীয় সহায়তার আশ্বাস আইসিসি’র ধ্বংসস্তুপ থেকে দলকে টেনে তুললেন মুশফিক-লিটন আঞ্চলিক সংকট মোকাবেলায় অর্থনৈতিক সহযোগিতা জোরদারে প্রধানমন্ত্রীর পাঁচ প্রস্তাব ফিলিপাইনে ফেরিতে অগ্নিকান্ডে কমপক্ষে ৭ জনের প্রাণহানি : কোস্ট গার্ড টস জিতে ব্যাটিংয়ে বাংলাদেশ জৈষ্ঠ্যেমাসে কুয়াশা ! শিমুলিয়া নৌপথে আড়াই ঘণ্টা ফেরি চলাচল বন্ধ ছিলো ডিভিশন পেলেন হাজী সেলিম, চিকিৎসা দেওয়ার নির্দেশ নর্থ সাউথ বিশ্ববিদ্যালয়ের ৪ ট্রাস্টির জামিন নামঞ্জুর করে পুলিশে দিলেন হাইকোর্ট ক্ষমতায় গেলে ডিজিটাল সিকিউরিটি আইন বাতিল করবে বিএনপি: মির্জা ফখরুল পদ্মা সেতু উদ্বোধনের কথা শুনলেই বিএনপির মুখ কালো হয়ে যায়: ওবায়দুল কাদের

হেজহগ! লোহার এই দেওয়ালই রাশিয়ার বিরুদ্ধে ইউক্রেনের অন্যতম সেরা ‘অস্ত্র’

  • সর্বশেষ আপডেট : বৃহস্পতিবার, ১০ মার্চ, ২০২২
ছবি: রয়টার্স।

এগুলিকে ‘অ্যান্টি-ট্যাঙ্ক অবস্ট্যাকল ডিফেন্স’ বলা হয়। হালকা এবং মাঝারি মাপের ট্যাঙ্কের গতি রুদ্ধ করতে এই হেজহগের দেওয়াল যথেষ্ট কার্যকরী হয়েছিল দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের সময়।


হেজহগ। এই নামটি শুনলেই সজারুর মতো দেখতে ছোট প্রাণীটির ছবি ভেসে ওঠে। ইউক্রেনে রুশট্যাঙ্কের হামলা ঠেকাতে এই হেজহগই অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ প্রতিরোধক হয়ে উঠেছে। নাম এক হলেও এই হেজহগ কিন্তু সেই ছোট্ট প্রাণীটি নয়। বড় বড় লোহার বিম কেটে সেগুলিকে জুড়ে তৈরি করা হয় এই গার্ডরেল। এই গার্ডরেল ইউক্রেনের গুরুত্বপূর্ণ শহরগুলিতে রুশট্যাঙ্কের গতি প্রায় অবরুদ্ধ করে দিতে সাহায্য করেছে।

রাশিয়ার বিরুদ্ধে এই ‘অস্ত্র’ ইউক্রেনীয় সেনা এবং নাগরিকরা ব্যবহার করলেও হেজহগের জন্মস্থান কিন্তু সাবেক চেকোস্লোভাকিয়ায়। এগুলিকে ‘অ্যান্টি-ট্যাঙ্ক অবস্ট্যাকল ডিফেন্স’ বলা হয়। হালকা এবং মাঝারি মাপের ট্যাঙ্কের গতি রুদ্ধ করতে এই হেজহগের দেওয়াল যথেষ্ট কার্যকরী হয়েছিল দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের সময়। কোনও গাড়ি বা ট্যাঙ্ক এই লৌহনির্মিত দেওয়ালের উপর দিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করলে আটকে যাবে। এমনকি ক্ষতিগ্রস্তও হবে।

সংবাদ সংস্থা এএফপি-র প্রতিবেদন অনুযায়ী, রাশিয়া যে দিন ইউক্রেনে সামরিক হামলা চালাল, পশ্চিম ইউক্রেনের লুভিউভ শহরে এক দল লোক ইউ টিউব দেখে এই হেজহগ বানানো শুরু করলেন। আশপাশ থেকে যত লোহা-লক্কর পেলেন, তা দিয়েই একের পর এক হেজহগ বানানো শুরু করলেন। এবং নেটমাধ্যমে বার্তা ছড়িয়ে দেন যে, হামলাকারী রুশট্যাঙ্ককে আটকাতে এই অস্ত্র অত্যন্ত উপযোগী। সকলকে পরামর্শ দিলেন যত দ্রুত সম্ভব এই হেজহগ বানিয়ে রুশ সেনাট্যাঙ্কের গতিরোধ করতে। এক একটি হেজহগের ওজন ১০০ কেজি। ঘটনাচক্রে, এই হেজহগ বানানোর পর দিনই লুভিউব শহরে হামলা চালায় রুশ সেনা।

শেয়ার করুন

আরও খবর

মুজিববর্ষ সম্পর্কে জানতে নিচে ক্লিক করুন