ঢাকা, বাংলাদেশ সময়ঃ ৪:৪৫ অপরাহ্ণ শনিবার, ৮ মে, ২০২১
করোনাভাইরাস
অনলাইন ডেস্ক
অনলাইন ডেস্ক
Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
ছবি: সংগৃহীত

করোনায় আক্রান্ত রোগীর ফুসফুস তিন মাস পর্যন্ত স্বাভাবিক কার্যক্ষমতা হারায় বলে সম্প্রতি এক গবেষণায় উঠে এসেছে।

অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের একদল গবেষক অত্যাধুনিক প্রযুক্তিতে ১০ জন করোনা রোগীর ওপর গবেষণা চালিয়ে এ তথ্য জানান। খবর বিবিসির।

গবেষক দলটি ফুসফুসের এমআরআই পরীক্ষায় জেনন নামে এক ধরনের গ্যাস ব্যবহার করেন।

বিশেষজ্ঞরা বলেন, এভাবে পরীক্ষার ফলে ফুসফুস কী পরিমাণ ক্ষতিগ্রস্ত তা স্পষ্ট করে বোঝা যায়।

এ পদ্ধতিতে পরীক্ষা করার আগে রোগীকে নিঃশ্বাসর সঙ্গে একটু জেনন গ্যাস নিতে বলা হয়। পরে এমআরআই করলে ক্ষতিগ্রস্ত স্থানগুলো পরিষ্কারভাবে দেখা যায়।

 

গবেষক দলের প্রধান অধ্যাপক ফেরগুস গ্লিসন বলেন, আমরা এ পদ্ধতিতে ১৯ থেকে ৬৯ বছর বয়সী ১০ জন করোনা রোগীর ফুসফুস পরীক্ষা করেছি।

স্বাভাবিক পরীক্ষায় করোনা থেকে সেরে ওঠা এসব লোকের ফুসফুসে কোনো সমস্যা ধরা পড়েনি। এদের মধ্যে আটজনই প্রচণ্ড শ্বাসকষ্টে ভুগছিলেন। পরে জেনন গ্যাস দিয়ে পরীক্ষার পর ফুসফুস অকেজ করার বিষয়টি ধরা পড়ে।

 ইউনিভার্স ট্রিবিউন