রাজশাহী :


চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলার শিবগঞ্জ উপজেলার নয়ালাভাঙ্গা থেকে এক মাদরাসা ছাত্রের লাশ উদ্ধারের ২ ঘন্টার ভেতরে পুলিশ সুপার এ এইচ এম আবদুর রকিব বিপিএম পিপিএম (বার) এর নির্দেশনায় ও অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) মোহাম্মদ ইকবাল হোছাইন পিপিএম ও এসআই আবু আব্দুল্লাহ জাহিদ পিপিএম এর নেতৃত্বে বিকেল ৪ টার দিকে ডিবি পুলিশের একটি টিম ২ হত্যাকারীকে গ্রেপ্তার করেছে।

চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জে মাদরাসা ছাত্র হত্যার ঘটনায় আটক-২

গ্রেপ্তারকৃতরা হচ্ছে, শিবগঞ্জ উপজেলার সাবেক লাভাঙ্গা গ্রামের সাইদুলের ছেলে আকবর (২০) ও রাজ্জাকের ছেলে তুষার (১৮)।

জানা গেছে, প্রায় পনের দিন পূর্বে গ্রামে গুলি খেলা (মার্বেল) নিয়ে তাদের মধ্যে ঝগড়া হয়। আকবরের হেফাজত থেকে নিহত ছাত্রের ব্যবহৃত মোবাইল, সীম ও খুনের ঘটনায় ব্যবহৃত কোদাল উদ্ধার করা হয়।

এর আগে চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জ উপজেলার নয়ালাভাঙ্গা ইউনিয়নের ঘোড়ামারা মাঠের একটি আম বাগান থেকে মাটিতে পুঁতে রাখা অবস্থায় ৯ম শ্রেণির এক মাদরাসা ছাত্রের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে।

নিহত ছাত্র শিবগঞ্জ উপজেলার সাবেক লাভাঙা গ্রামের সফিকুল ইসলামের ছেলে নাজিম উদ্দীন (১৫)।

শিবগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ ওসি (তদন্ত) আতিকুল ইসলাম জানান, গত ১১ মে তারাবির নামাজ পড়ার কথা বলে বাড়ী থেকে বের হয়ে নাজিম উদ্দীনকে খুঁজে পাওয়া যায়নি। পরে নাজিমের পিতা সফিকুল ইসলাম ১৩ মে শিবগঞ্জ থানায় একটি সাধারণ ডায়েরী করেন।

ওসি আরো জানান, শুক্রবার বিকেল সাড়ে ৩ টার দিকে একটি আম বাগানে মাটিতে পুঁতা অবস্থায় লাশ দেখতে পেয়ে স্থানীয়রা থানায় খবর দেয়। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।

তিনি আরো জানান, লাশ ময়নাতদন্তের জন্য চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর আধুনিক হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। তবে এটি একটি পরিকল্পিত হত্যাকান্ড বলে জানান তিনি। এ ঘটনায় কাউকে আটক বা শনাক্ত করতে পারেনি পুলিশ। এ ঘটনায় এলাকায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *