ঢাকা, বাংলাদেশ সময়ঃ ৫:০৩ অপরাহ্ণ শনিবার, ৮ মে, ২০২১
ব্রহ্মপুত্রের ভারত ও বাংলাদেশ অংশে
অনলাইন ডেস্ক
অনলাইন ডেস্ক
Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
ছবি: সংগৃহীত

একটি জলবিদ্যুৎ প্রকল্প বাস্তবায়ন করতে স্বায়ত্তশাসিত অঞ্চল তিব্বতের অন্তর্গত ব্রহ্মপুত্র নদের নিম্ন স্রোতের উৎপত্তিমুখে বাঁধ নির্মাণের অনুমতি দিয়েছে চীনের কর্তৃপক্ষ। খবর গ্লোবাল টাইমস।

এদিকে, ওই বাঁধ নির্মিত হলে ব্রহ্মপুত্রের ভারত ও বাংলাদেশ অংশে বিপত্তি দেখা দিতে পারে বলে মনে করছেন নদী গবেষকরা।

এ ব্যাপারে কলকাতা থেকে প্রকাশিত আনন্দবাজার পত্রিকা জানাচ্ছে, ওই বাঁধ নির্মাণ প্রকল্প চীনের ১৪তম পঞ্চবার্ষিক পরিকল্পনার (২০২১-২০২৫) অন্তর্ভুক্ত বলে ধারণা করা হচ্ছে।

এর মাধ্যমে, চীনের স্বায়ত্তশাসিত অঞ্চল তিব্বতের ব্রহ্মপুত্র (ইয়ারলুং জ্যাংবো নামে পরিচিত) নদে জলবিদ্যুৎ উৎপাদনের একটি নতুন অধ্যায় শুরু হবে বলে মনে করা হচ্ছে।

অন্যদিকে, ভারতের অরুণাচল রাজ্যের সীমান্ত ঘেঁষা তিব্বতের মেডগ কাউন্টির কাছে নদীখাতের একটি অংশে এই বাঁধ তৈরি হবে বলে প্রাথমিকভাবে জানা গেছে। বাঁধ নির্মাণ পরিকল্পনার অংশ হিসেবে নভেম্বরে চীনের রাষ্ট্রায়ত্ত জলবিদ্যুৎ কোম্পানি পাওয়ার চায়না তিব্বতের স্বায়ত্তশাসিত আঞ্চলিক কর্তৃপক্ষের একটি কৌশলগত চুক্তি সই করেছে।

প্রসঙ্গত, ২০১৫ সালে তিব্বতের জাঙ্গমুতে চীন তাদের প্রথম জলবিদ্যুৎ প্রকল্পের কার্যক্রম শুরু করেছিল। এরপর দাগু, জিয়েক্সু ও জাছা এলাকায় আরও তিনটি বাঁধ নির্মাণ করে তারা। এগুলোর সবই ব্রহ্মপুত্রের উচ্চ ও মাঝারি স্রোতের গতিপথে। কিন্তু, এই প্রথম ব্রহ্মপুত্রের নিম্ন স্রোতে বাঁধ নির্মাণের পরিকল্পনা করল চীন।

অপরদিকে, পাওয়ার চায়নার চেয়ারম্যান ইয়ান ঝিইয়ং গ্লোবাল টাইমসকে জানিয়েছেন, চীনের জলবিদ্যুৎ প্রকল্পের ইতিহাসে এই উদ্যোগ নজিরবিহীন।

Adddd_Logo.png

এর আগেও, ব্রহ্মপুত্রের উচ্চ ও মাঝারি স্রোতে নির্মিত চারটি বাঁধ নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছিল ভার‍ত। যদিও সেগুলো ব্রহ্মপুত্র নদের পানিপ্রবাহে বড় কোনো প্রভাব ফেলেনি। কিন্তু, নিম্ন স্রোতে বাঁধটির অনুমোদন দেওয়ায় চীন ও ভারতের মধ্যে নতুন করে উদ্বেগ ও উত্তেজনা তৈরি হতে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে।

 ইউনিভার্স ট্রিবিউন