ঢাকা, বাংলাদেশ | সময়ঃ ১০:৫০ পূর্বাহ্ণ
আজ শনিবার, ৮ মে, ২০২১
অনলাইন ডেস্ক
অনলাইন ডেস্ক
Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
ভারতের ফুরফুরা দরবার শরীফের পীরজাদা আব্বাস সিদ্দিকী । ছবি: সংগৃহীত

তৃণমূল কংগ্রেসকে লক্ষ্য করে ভারতের ফুরফুরা দরবার শরীফের পীরজাদা আব্বাস সিদ্দিকী বলেছেন, আমি বলেছিলাম আসুন, ৪৪টা আসন আমাকে দিন, ২৫০টা আপনি নিন। কিন্তু দেখছি প্রশাসন দিয়ে জুলুম করছে, গায়ের জোর দেখাচ্ছে। মিথ্যে মামলা দিচ্ছে। আর বলছে, বিজেপি চলে আসবে। ওদিকে বিজেপিও আবার বলছে, মারব। উনি দরজা খুলে বলছেন, চলে এসো চলে এসো। যেই হুড়মুড় করে ঢুকেছি, অমনি তালা মেরে দিয়েছে। আর বেরোনোর কথা বললেই বলছে, বিজেপি আছে। এক, দুই, তিন বছর ধরে ওইভাবেই ফেলে রেখে দিচ্ছে। আসলে বিজেপির জুজু দেখিয়ে জেলে ভরছে প্রশাসন। 

বিজেপি যদি যদি দশটা মারে, আমরাও হাতে চুড়ি পরে নেই, বিশটা মারব।


ফুরফুরা পীরজাদা বলেন, আসন্ন বিধানসভা ভোটে মালদা জেলায় ৬টি আসনে প্রার্থী দেওয়া হবে। তবে যদি অন্য দলের সঙ্গে সমঝোতা হয়, সেক্ষেত্রে সমঝোতার সূত্রে আসন সংখ্যা কমতে পারে।

প্রসঙ্গত, গত কয়েক মাস ধরে রাজ্য রাজনীতির আলোচনার কেন্দ্রে ফুরফুরা শরিফের পীরজাদা আব্বাস সিদ্দিকী। তিনি লাগাতার সংখ্যালঘু এলাকার সভা থেকে আদিবাসী, দলিত ও মুসলিমদের নিয়ে ফ্রন্ট গঠনের কথা বলে আসছিলেন। এর মাঝে ফুরফুরা শরিফে গিয়ে আব্বাসের সঙ্গে দেখা করেন এআইএমআইএম প্রধান আসাউদ্দিন ওয়াইসি। দিন কয়েক আগে ‘ইন্ডিয়ান সেক্যুলার ফ্রন্ট’ দলের ঘোষণা করেছেন আব্বাস। ওই দিনই বাম-কংগ্রেসের জন্যে দরজা খোলা রেখেছিলেন তিনি।

সূত্রের খবর, সংখ্যালঘু মহলে আব্বাস সিদ্দিকির জনপ্রিয়তা আঁচ করে তাকে ‘ধর্মনিরপেক্ষ’ জোট নিতে উৎসাহী বাম-কংগ্রেস।