ঢাকা, বাংলাদেশ | সময়ঃ ৪:৪২ অপরাহ্ণ
আজ শনিবার, ৮ মে, ২০২১
অনলাইন ডেস্ক
অনলাইন ডেস্ক
Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin

অক্সিজেন ট্যাঙ্কে লিক হয়ে ভারতের মহারাষ্ট্রে একটি হাসপাতালে ২২ জন কোভিড রোগীর মর্মান্তিক মৃত্যু হয়েছে। মারা যাওয়ার রোগীর সবাই ভেন্টিলেশনে ছিলেন। অক্সিজেন না পেয়ে তাদের মৃত্যু হয়েছে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে।  

বুধবার রাজ্যের নাসিক শহরের জাকির হোসেন হাসপাতালে এ ঘটনা ঘটে। 

মৃতদের পরিবারের দাবি, অক্সিজেনের ট্যাঙ্কে লিকের জেরে বন্ধ হয়ে গিয়েছিল ভেন্টিলেটর। তার ফলে মৃত্যু হয়েছে। 

তবে বিষয়টি সরাসরি স্বীকার না করলেও মহারাষ্ট্রের স্বাস্থ্যমন্ত্রী রাজেশ তোপী জানিয়েছেন, একটি অক্সিজেনের ট্যাঙ্কে লিকের সঙ্গে মৃত্যুর যোগ থাকতে পারে। ঘটনায় ইতোমধ্যে তদন্তের আশ্বাস দিয়েছেন তিনি। 

সংবাদসংস্থা এএনআই জানিয়েছে, বুধবার নাসিকে জাকির হোসেন হাসপাতালের ট্যাঙ্কারে অক্সিজেনের ভরার সময় একটি ট্যাঙ্কে লিক ধরা পড়ে। সেই অক্সিজেনের লিকের ঘটনার একটি ভিডিও ছড়িয়ে পড়ে। সেখানে চারিদিকে সাদা ধোঁয়ায় ঢেকে থাকতে দেখা যায়। 

সংবাদসংস্থা পিটিআই জানিয়েছে, করোনা আক্রান্তদের জন্য সেই হাসপাতাল চালাচ্ছিল নাসিক পৌররসভা। যে হাসপাতালে ১৫০ জন রোগী চিকিৎসাধীন ছিলেন। তাদের মধ্যে ২৩ জন ভেন্টিলেশনে ছিলেন।

নাসিকের ডিভিশনাল কমিশনার রাধাকৃষ্ণ গামে বলেছেন, ‘সকাল ১০ টা নাগাদ দুর্ভাগ্যজনক ঘটনাটি ঘটেছে। অক্সিজেন ট্যাক্সের সকেট বিগড়ে গিয়েছিল। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ কয়েকজন রোগীকে সরিয়ে নিয়ে গিয়েছিল। কিন্তু অক্সিজেনের মাত্রা কম থাকায় ২২ জনের মৃত্যু হয়েছে।’

নাসিকের পুরনিগমের কমিশনার কৈলাস যাদবও জানিয়েছে, হাসপাতালে অক্সিজেন লিকের কারণ প্রায় ৩০ মিনিট বন্ধ ছিল অক্সিজেন সরবরাহ। সেজন্যই ভেন্টিলেশনে থাকা রোগীদের মৃত্যু হতে পারে।