রাজশাহীতে শনিবার (১৫ মে) থেকে পরিপক্ব গুটি আম গাছ থেকে নামিয়ে বাজারজাত করা শুরু করছেন ব্যবসায়ী ও বাগান মালিকরা। অসাধু ব্যবসায়ীরা যাতে অপরিপক্ব আম বাজারে বিক্রি করতে না পারেন সে লক্ষ্যে সব জাতের আম নামানোর ক্ষেত্রে নির্দিষ্ট সময়সীমা বেঁধে দিয়েছেন জেলা প্রশাসক।

বর্তমানে রাজশাহীর বাগানগুলোতে ঝুলছে গুটি, ল্যাংড়া, ফজলি, গোপালভোগ, আশ্বিনা, লখনাসহ হরেক জাতের সুস্বাদু আম। এরইমধ্যে কিছু বাগানে গুটি আম পরিপক্ব আকার ধারণ করেছে।

এই মৌসুমে কিছু অসাধু ব্যবসায়ী নানান জাতের অপরিপক্ব আমে ক্ষতিকর কীটনাশক মিশিয়ে বাজারে অধিক মুনাফার আশায় বিক্রি করেন। এ কারণে কয়েক বছর ধরে রাজশাহী জেলায় বাগান মালিকরা কোন আম কখন বাজারজাত করতে পারবেন তার সময় নির্ধারণ করে দেয় জেলা প্রশাসন। এরই ধারাবাহিকতায় ১৫ মে থেকে গুটি আম পাড়ার সময় নির্ধারণ করে দিয়েছেন বলে জানিয়েছেন রাজশাহী জেলা প্রশাসক মো. আব্দুল জলিল।

ভোক্তরা সচেতন হলে এই সংকট অনেকটাই দূর হবে বলে জানান রাজশাহী ফল গবেষণা কেন্দ্রের সিনিয়র বৈজ্ঞানিক সিনিয়র বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা ডা. হাবিবুল আলম। 
জেলায় প্রায় ১৮ হাজার হেক্টর জমির বাগানে সোয়া দুই লাখ মেট্রিক টন আম উৎপাদনের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করেছে কৃষি বিভাগ।

 

সর্বশেষ
আরও খবর